Home / অন্যন্য / ৩০শে মা’র্চ খুলছে স্কু’ল-কলেজ

৩০শে মা’র্চ খুলছে স্কু’ল-কলেজ

দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর আসলো ঘোষণা। খুলে দেয়া হচ্ছে স্কুল-কলেজ। ৩০শে মার্চ থেকে শিক্ষার্থীরা ফের যাবেন প্রতিষ্ঠানে।ক’রোনাভা’ইরাসেের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে শনিবার সন্ধ্যায় স’চিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে

অনুষ্ঠিত আন্তঃম’ন্ত্রণালয় বৈঠকে এ সি’দ্ধান্ত নেয়া হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বৈঠকে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, স্ব’রা’ষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির

হোসেনসহ কর্মকর্তারা অংশ নেন। বৈঠক শেষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমুহ ৩০শে মার্চ খুলে দেয়া হবে। তবে এখনই প্রাক প্রাথমিক খুলে দেয়া হবে না।

এই সময়ে শিক্ষকদের ক’রোনা ভাই’রাসের টিকা দেয়া হবে। কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যদি মেরামত বা সংস্কারের প্রয়োজন হয় সংশ্লিষ্ট সকলকে নিয়ে এই কাজগুলো সম্পন্ন করব। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা ম’ন্ত্রণালয় ও

শিক্ষাম’ন্ত্রণালয়ে তৃণমূ’ল পর্যায়ে যারা কাজ করেন তারা সবাই স্বাস্থ্যবিধির বি’ষয়টি পর্যবেক্ষণ করবেন।প্রস’ঙ্গত, ক’রোনা ভাই’রাসের প্র’কোপ শুরু হওয়ায় গত বছরের ১৭ই মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এরপর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান

ছুটি ধাপে ধাপে বাড়িয়ে ২৮শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত করা হয়।গত সোমবার শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছিলেন দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠদান শুরু হবে ২৪শে মে থেকে। আর আবাসিক হল খুলবে ১৭ই মে। যদিও এই তারিখের আগে ক্যাম্পাস

খুলে দিতে আন্দোলন করছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, স্ব’রা’ষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনসহ কর্মকর্তারা অংশ নেন। বৈঠক শেষে

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমুহ ৩০শে মার্চ খুলে দেয়া হবে। তবে এখনই প্রাক প্রাথমিক খুলে দেয়া হবে না।এই সময়ে শিক্ষকদের ক’রোনা ভাই’রাসের টিকা দেয়া হবে। কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যদি মেরামত বা সংস্কারের প্রয়োজন হয় সংশ্লিষ্ট সকলকে নিয়ে এই কাজগুলো সম্পন্ন করব। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা ম’ন্ত্রণালয় ও শিক্ষাম’ন্ত্রণালয়ে তৃণমূ’ল পর্যায়ে যারা কাজ করেন তারা সবাই স্বাস্থ্যবিধির বি’ষয়টি পর্যবেক্ষণ করবেন।প্রস’ঙ্গত, ক’রোনা ভাই’রাসের প্র’কোপ শুরু হওয়ায় গত বছরের ১৭ই মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এরপর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি ধাপে ধাপে বাড়িয়ে ২৮শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত করা হয়।গত সোমবার শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছিলেন দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠদান শুরু হবে ২৪শে মে থেকে। আর আবাসিক হল খুলবে ১৭ই মে। যদিও এই তারিখের আগে ক্যাম্পাস খুলে দিতে আন্দোলন করছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *