Home / লাইফস্টাইল / যেসব অবস্থায় স্বা’মী-স্ত্রী স’হবা’স নি’ষিদ্ধ ও কিছু নিয়ম!

যেসব অবস্থায় স্বা’মী-স্ত্রী স’হবা’স নি’ষিদ্ধ ও কিছু নিয়ম!

মহান আল্লাহ্‌তায়ালা প্রত্যেক পু’রুষের জন্য স্ত্রী হিসেবে একজন না’রীকে মনোনিত করে রেখেছেন। এই স্ত্রীর সাথে আল্লাহর দেওয়া বিধান অনুযায়ী স’হবা’স করলে আমরা সহজেই তৃ’প্তি লাভ করতে পারি।

বেঁ;চে যেতে পারি এইডস এর মত নিশ্চিত মৃ’ত্যুর হাত থেকে। মহান আল্লাহ্‌তায়ালা বলেন,হে পু’রুষ সম্প্রদায় আমি তোমাদের জন্য তোমাদের আ’নন্দ হালাল করে দিয়েছি। যাতে করে তোমরা শয়তানের ধোঁ;কায় পরে বি;পথগামী না হও।

স’হবা’স করার দোয়া :
‘বিসমিল্লাহি আল্লাহুম্মা জান্নিবনাশ শায়ত্বানা ওয়া জান্নিবিশ শায়ত্বানা মা রাযাক্বতানা।’

অর্থ : ‘হে আল্লাহ! তোমার নামে আরম্ভ করছি, তুমি আমাদের নিকট হতে শয়তানকে দূরে রাখ। আমাদের এ মি’ল;নের ফলে যে স’ন্তান দান করবে, তা হতেও শয়তানকে দূরে রাখ।’

যেসব অবস্থায় স’হবা’স নি’ষি;দ্ধ :
রো’গী ব্যক্তি স’হবা’স করিলে তার রো’গ আরো বেড়ে যায় এবং শ’রীরের ক্ষ’তি হবে
শ’রীরে জ্বর ও বেশি গরমে স্ত্রী স’হবা’স পা’গল হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে।
বৃ’দ্ধা ও বারবনিতার স’ঙ্গে স’হবা’স করলে আয়ু কমে যায়।

হায়েজের অবস্থায় স্ত্রী স’হবা’স করলে স্বা’মী স্ত্রী দুই জনেই রো’গ হতে পারে।
নিকৃষ্ট স্ত্রী সাথে করলে নিকৃ;ষ্ট স’ন্তান জম্ম লাভ করে।
ভরা পেটে স্ত্রী স’হবা’স করলে কঠিন রো’গ হবে।

অন্ধকার ঘরে ক্ষুদ্র বা নোং;ড়া জায়গায় স্ত্রী স’হবা’স করলে চিরতরে স্বাস্থ্য ন’ষ্ট হয়ে যায়।
ভীষণ ক্ষুধার সময় স্ত্রী স’হবা’স করিলে লি;ঙ্গ শিথিল হয়ে যায়।
স্বা’মী স্ত্রী স’হবা’স করার কিছু নিয়ম কানুন :
রাত্রি দ্বি-প্রহরের আগে স’হবা’স না করা।

ফলবান গাছের নিচে স’হবা’স না করা।
স’হবা’সের প্রথমে দোয়া পড়া এবং বিসমিল্লাহ বলে শুরু করা।
স’হবা’স করার সময় নিজের স্ত্রীর রূপ দর্শন শ’রীর স্পর্শন ও স’হবা’সের সুফলের প্রতি মনো নিবেশ করা ছাড়া অন্য কোনো সুন্দরী স্ত্রী লোকের বা অন্য সুন্দরী বালিকার রুপের কল্পনা না করা।

রবিবারে এবং বুধবারের রাত্রে স’হবা’স না করা।
চন্দ্র মাসের প্রথম এবং পনের তারিখ রাতে স’হবা’স না করা।
স্ত্রীর জরায়ু দিকে চেয়ে স’হবা’স না করা, ইহাতে চোখের জ্যোতি ন’ষ্ট হয়ে যায়।
বিদেশ যাওয়ার আগের রাতে স্ত্রী স’হবা’স না করা।

স’হবা’সের সময় বেশি কথা না বলা।
না’পাক শ’রীরে স’হবা’স না করা।
উ’লঙ্গ হয়ে কাপড় ছাড়া অবস্থায় স’হবা’স না করা।
জোহরের নামাজের পরে স’হবা’স না করা।

স্বপ্নদোষের পর গোসল না করে স্ত্রী স’হবা’স না করা।
পূর্ব-পশ্চিম দিকে শুয়ে স’হবা’স না করা।
সর্বশ’ক্তিমান আল্লাহ্‌তালার দেওয়া হুকুম মেনে সবাইকে স’হবা’স করার তৌফিক দান করুন। (আমীন)

Check Also

দু’ধ চা খেলে যে আটটি ক্ষ’তি হয়ে থাকে, সবার জেনে রাখা উচিত

১০০% গ্যারান্টি, মাত্র ৫ টাকা খরচ করে ৭ দিনের মধ্যে নিখুঁত-মসৃন ও উজ্জ্বল ত্বক – …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *