Home / আন্তর্জাতিক / মিয়ানমারে বি’ক্ষো’ভে প্রথম মৃ’ত্যু

মিয়ানমারে বি’ক্ষো’ভে প্রথম মৃ’ত্যু

মিয়ানমারে সা’মরিক অভ্যুত্থানবি’রোধী বি’ক্ষো’ভে গু’লিতে এক তরুণী নি’হত হয়েছেন। ২০ বছর ব’য়সী ওই না’রীর নাম মিয়া থতে থতে খাইং। আজ শুক্রবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই ত’থ্য জানানো হয়।

এদিকে বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, শুক্রবার বেলা ১১টায় মিয়া থতে থতে খাইংয়ের মৃ’ত্যু হয়েছে বলে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।মিয়ানমারে সে’না অভ্যুত্থানের বি’রুদ্ধে চলমান বি’ক্ষো’ভে এই প্রথম কোনো বি’ক্ষো’ভকারী

মা’রা গেলেন। গত সপ্তাহের শুরুতে রাজধানীর নেপিদোতে বি’ক্ষো’ভের সময় ওই তরুণীর মাথায় পু’লিশের গু’লি লেগেছিল। খাইংয়ের মৃ’ত্যুর কারণ নির্ণয়ে পরীক্ষা করে সু’রতহাল প্রতিবেদন কর্তৃপক্ষের কাছে দেওয়া হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক চিকিৎসক বলেন, আমরা ন্যায়বিচার চাই। নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ওই না’রীকে নেওয়ার পর থেকেই হাসপাতাল কর্মীদের ও’পর ব্যাপক চা’প এসেছে।

গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সু চিকে হটিয়ে সে’নাবা’হিনীর ক্ষ’মতা দ’খলের পর নিরাপত্তা বাহিনীর ধরপাকড়ে এই প্রথম কোনো মৃ’ত্যুর খবর এসেছে। গত ৯ ফেব্রুয়ারি সে’নাবি’রোধী বিক্ষোভে পু’লিশ রাবার বু’লেট ছুড়লে

স’হিংস হয়ে ওঠে। তখন তাজা গু’লিতে আ’হত অন্তত দুজনের অবস্থা আ’শঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন।সা’মরিক বাহিনীর মুখপাত্র ও ত’থ্যমন্ত্রী জ মিন টুন চলতি সপ্তাহে মিয়া থতে থতে খাইংয়ের গু’লিবিদ্ধ হওয়ার খবর নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, এ ঘ’টনায় ত’দন্ত অব্যাহত রয়েছে।

আ’হত হওয়ার পর থেকে প্রতিরোধ আন্দোলনের প্রতীক হয়ে ওঠেন মিয়া থতে থতে খাইং। বি’ক্ষো’ভকারীদের বড় বড় ব্যানারে তার ছবি দেখা গেছে। তারা ন্যায়বিচার দাবি করেন।

গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সু চিকে হটিয়ে সে’নাবা’হিনীর ক্ষ’মতা দ’খলের পর নিরাপত্তা বাহিনীর ধরপাকড়ে এই প্রথম কোনো মৃ’ত্যুর খবর এসেছে। গত ৯ ফেব্রুয়ারি সে’নাবি’রোধী বিক্ষোভে পু’লিশ রাবার বু’লেট ছুড়লে

স’হিংস হয়ে ওঠে। তখন তাজা গু’লিতে আ’হত অন্তত দুজনের অবস্থা আ’শঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন।সা’মরিক বাহিনীর মুখপাত্র ও ত’থ্যমন্ত্রী জ মিন টুন চলতি সপ্তাহে মিয়া থতে থতে খাইংয়ের গু’লিবিদ্ধ হওয়ার খবর নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, এ ঘ’টনায় ত’দন্ত অব্যাহত রয়েছে।

আ’হত হওয়ার পর থেকে প্রতিরোধ আন্দোলনের প্রতীক হয়ে ওঠেন মিয়া থতে থতে খাইং। বি’ক্ষো’ভকারীদের বড় বড় ব্যানারে তার ছবি দেখা গেছে। তারা ন্যায়বিচার দাবি করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *