Home / সারা বাংলা / মামুনুল হক: রিসোর্টে অ’বরুদ্ধ হওয়ার পর হেফাজত নেতার সমর্থকরা তাকে ‘ছিনিয়ে নেয়’

মামুনুল হক: রিসোর্টে অ’বরুদ্ধ হওয়ার পর হেফাজত নেতার সমর্থকরা তাকে ‘ছিনিয়ে নেয়’

বাংলাদেশে কওমী মাদ্রাসাভিত্তিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাস’চিব মামুনুল হককে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের একটি রিসোর্টে নাটকীয় পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল।

মামুনুল হককে কয়েক ঘন্টা সেখানে অ’বরুদ্ধ করে রাখার পরে হেফাজতে ইসলামের সমর্থক এবং মাদ্রাসার ছাত্ররা পাল্টা হা’মলা চালিয়ে তাকে নিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন সোনারগাঁও থানার একজন পু’লিশ কর্মকর্তা।

পু’লিশ বলছে, ঢাকার কাছেই সোনারগাঁও এলাকায় অবস্থিত একটি রিসোর্টে শনিবার বিকেলে তাকে ঘেরাও করে রাখে স্থানীয় কিছু লোকজন এবং ক্ষ’মতাসীন দলের সাথে সম্পৃক্ত ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মীরা।

তারা অভিযোগ করেন, মামুনুল হক একজন না’রীকে নিয়ে রিসোর্টে ঘুরতে গিয়েছেন। অন্যদিকে মামুনুল হক বলেছেন, তিনি তার দ্বিতীয় স্ত্রী’কে নিয়ে সেখানে ঘুরতে গিয়েছেন।

এক পর্যায়ে পু’লিশও সেখানে উপস্থিত হয়।ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা যায়, একটি কক্ষের ভে’তরে বেশ কয়েকজন ব্যক্তি মামুনুল হককে নানা প্রশ্ন করছে।

এক ব্যক্তি জিজ্ঞেস করেন, “এই ম’হিলা কী হয় আপনার?”জবাবে মামুনুল হক বলেন, “আমার সেকেন্ড ওয়াইফ। আমি তাকে শরিয়তসম্মত ভাবে বিয়ে করছি।”তখন আরেক ব্যক্তি জিজ্ঞেস করেন, “আপনি কবে বিয়ে করছেন?”

জবাবে মামুনুল হক বলেন, “দুই বছর।”মামুনুল হক বলেন, তিনি বেড়াতে সে রিসোর্টে গিয়েছেন।ভিডিওতে মামুনুল হককে বলতে দেখা যায়, “আপনারা সবাই আমার সাথে দুর্ব্যবহার করছেন। ”

ভিডিওতে দেখা যায়, কিছু ব্যক্তি নিজেকে সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দিয়ে মামুনুল হককে নানা প্রশ্ন করছেন এবং কেউ কেউ নিজেকে ছাত্রলীগ বা যুবলীগ হিসেব পরিচয় দিচ্ছিল।

আরো পড়তে পারেন:হেফাজতে ইসলাম ও স’রকারের সম্প’র্ক কি ভেঙ্গে গেলো?স’রকারের স’ঙ্গে আহম’দ শফীর সখ্যতা বাংলাদেশকে যতটা বদলে দিয়েছেহেফাজত ও আওয়ামী লীগ সখ্যতা: শুধু ভোটের জন্য?

‘অ’পপ্রচারে বিভ্রান্ত না হতে’ বললেন হাসিনা ও শফীবাংলাদেশে কওমী মাদ্রাসায় পড়ছে কারা?
‘শো’করানা মাহফিল’ নিয়ে যত আলোচনাভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরের প্র’তিবাদে বি’ক্ষো’ভে নেতৃত্ব দিয়ে

আলোচনায় আসেন মামুনুল হক। সফরের দিনে হেফাজতে ইসলামের সমর্থকদের বি’ক্ষো’ভ।ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরের প্র’তিবাদে বি’ক্ষো’ভে নেতৃত্ব দিয়ে আলোচনায় আসেন মামুনুল হক। সফরের দিনে হেফাজতে ইসলামের সমর্থকদের বি’ক্ষো’ভ।

মামুনুল হককে যখন তার কক্ষে ঘেরাও করে রাখা হয় তখন সেখানে উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁও থানার ওসি অপারেশন্স মফিদুর রহমান। তিনি বিবিসি বাংলাকে বলেন, মামুনুল হকের সাথে যে না’রী ছিল তাকে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে দাবি করেছেন তিনি।

মি. রহমান জানান, বি’ষয়টি নিয়ে তারা মামুনুল হকের সাথে আলোচনা করছেন এবং বি’ষয়টি খতিয়ে দেখছেন।

এদিকে মামুনুল হককে লা’ঞ্ছিত করার ভিডিওটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে সন্ধ্যে সাতটার পরে হেফাজতে ইসলামের নেতা-কর্মী ও মাদ্রাসার ছাত্ররা রয়েল রিসোর্টে এসে ভা’ঙচুর চালিয়ে মামুনুল হককে নিয়ে যায়।

তবে পু’লিশ অবশ্য দাবি করেছে, হেফাজতে ইসলামের নেতাদের হাতে মামুনুল হককে তুলে দেয়া হয়েছে।

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সহকারী প্রচার সম্পাদক মোহাম্ম’দ ফয়সাল রাত নয়টার দিকে মামুনুল হককে আনতে নারায়ণগঞ্জে যান। সেখান থেকে তিনি বিবিসি বাংলাকে বলেন, মামুনুল হককে যারা লা’ঞ্ছিত করেছে তাদের গ্রে’ফতার এবং শা’স্তির জন্য প্রশাসনের কাছে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম।

এ বি’ষয়ে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে প্রশাসন আশ্বস্ত করেছে বলে জানান মোহাম্ম’দ ফয়সাল।হেফাজতের সমর্থক এবং মাদ্রাসার ছাত্ররা রিসোর্টে হা’মলা চালায়নি বলে দাবি করেন মি. ফয়সাল।

তিনি বলেন, “মাওলানা মামুনুল হক একজন জনপ্রিয় আলেম। ওনাকে আ’টকে রেখে লা’ঞ্ছিত করার খবর ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় মানুষজন হয়তো সেখানে গিয়েছে।”

এদিকে নারায়ণগঞ্জের পু’লিশ সুপার জায়েদুল আলম বিবিসি বাংলাকে বলেন, পু’লিশ মামুনুল হককে হেফাজতের নেতাদের হাতে তুলে দেয়নি।

পু’লিশ সুপার বলেন, “ওনার দ্বিতীয় বিয়ে সস্পর্কে আমরা যাচাই-বাছাই করছিলাম। এ সময় তার লোকজন সেখানে এসে উপস্থিত হলে ধা’ওয়া পাল্টা ধা’ওয়া হয়। এসময় তিনি চলে যান।”

Check Also

হেফাজতের তাণ্ডবের সব ঘটনায় বিএনপি জড়িত: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী এবং উগ্র সাম্প্রদায়িক দানবের প্রকাশ্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *